জনতার চেয়ারম্যান প্রার্থী হারুনের গণসংযোগ

52

চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হারুন হাওলাদার ব্যাস্ত সময় পার করছেন। তিনি তার নির্বাচনি এলাকায় ব্যাপক গণসংযোগ করে চলেছেন। ভোটারদের দ্বারে দ্বারে যাচ্ছেন হারুন ও তাঁর সমর্থকরা। ভোটারদের মাঝে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা লক্ষ করা যাচ্ছে।যেখানেই যাচ্ছেন, সেখানেই পাচ্ছেন এলাকার ভোটারদের ভালোবাসা। জনতার চেয়ারম্যান প্রার্থী হারুন হাওলাদারকে দেখে আনন্দে আত্মহারা হচ্ছেন।

ভোটারদের সাথে কুশল বিনিময় করছেন হারুন হাওলাদার।

গত দুই তিন দিনে হারুন হাওলাদার বোতরা বাজার, কালীগঞ্জ, বাকরকাঠী ও শ্যামপুর বাজার সহ ১২ নং রঙ্গশ্রী ইউনিয়নের সকল হাট বাজারে যাচ্ছেন নারী পুরুষ সহ সকল ভোটারদের কাছে চষে বেড়াচ্ছেন। পুরুষ ভোটাররা হারুন হাওলাদারকে কাছে পেয়ে বুকে জড়িয়ে ধরে আবেগ আপ্লূত হয়ে পড়ছেন এবং এলাকার উন্নয়ন চাইছেন। হারুন হাওলাদার ভোটারদের  দিচ্ছেন সামর্থ অনুযায়ী নানান প্রতিশ্রুতি।

এলাকার উৎসাহী যুবক ছেলেরা চেয়ারম্যান প্রার্থী হারুন হাওলাদারের সমর্থনে আনারস প্রতীক নিয়ে মিছিলও করছে। সব মিলিয়ে জমে উঠেছে নির্বাচনের মাঠ।

গণসংযোগে ব্যাস্ত সময় পার করছেন হারুন হাওলাদার।

আসছে ১১ এপ্রিল নির্বাচনে ১২ নং রঙ্গশ্রী ইউনিয়নের জনতার চেয়ারম্যান প্রার্থী হারুন হাওলাদারকে ঘিরে নির্বাচনে উৎসবের আমেজ সবার মধ্যে।

নির্বাচন নিয়ে হারুন হাওলাদার বলেন, আমি জনগণের খেদমত করার পাশাপাশি জনগনের পাশে থাকতে চাই। এ ছাড়াও ১২ নং রঙ্গশ্রী ইউনিয়ন কে ডিজিটাল ইউনিয়নে রূপান্তরিত করা হারুনের অঙ্গীকার।

ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক হারুন বলেন, ইউনিয়নের গরীব দুঃখী মানুষের পাশে থাকতে চাই এবং গ্রামের সকল কাচা রাস্তা কে পাকা করতে চাই। তাঁর রাজনৈতিক আদর্শ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সবার জন্য নির্বাচন উন্মুক্ত করেছেন। এতো বড় রাজনৈতিক দল সবাইকে তো আর দলীয় মনোনয়ন দেওয়া সম্ভব নয়, তাই আমিও এলাকার জনগনের দোয়া এবং ভালোবাসা নিয়ে নির্বাচনের মাঠে নেমেছি। জনগন আমার পক্ষে আছে এটাই আমার মুল শক্তি।

হারুন আরও বলেন আমি নির্বাচিত হলে আমি আমার প্রিয় রঙ্গশ্রী ইউনিয়নকে ঢেলে সাজাতে চাই। সেই সাথে জননেত্রী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে চাই।