বুকে ওড়না না থাকায় দুই ছাত্রীকে আটক করলো পুলিশ

47

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) দুই ছাত্রী মা’নসিক হ’য়রানির শি’কার হয়েছে বলে অভিয়োগ পাওয়া গেছে। তাদের অ’ভিযোগ, বিশ্ববিদ্যালয়ের কাজলা গেটে একজন শিক্ষক,
পু’লিশ সদস্য ও না’রী ওই শিক্ষার্থীদের পোশাক নিয়ে বিরূপ মন্তব্য ও বাকবিতণ্ডায় জড়ান। গত বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৪টায় কাজলা গেটে এ ঘ’টনা ঘটে। ভু’ক্তভোগীরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে অ’ভিযোগ করে লিখেন, ‘বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৪টায় একজন বান্ধবীর সাথে ক্যাম্পাসে ঢুকি কাজলা গেট দিয়ে।

তার ব্যাক পেইনের কারণে সে মসজিদের সামনে দাঁড়ালে হঠাৎ একজন শিক্ষক চি’ৎকার ও ঝাড়ি দিয়ে বললেন যে, এই মে’য়ে এখান থেকে যাও। লজ্জাশরম নেই? মসজিদের সামনে দাঁড়িয়েছ কেন? আমরা সেখান থেকে চলে যাচ্ছিলাম তখন সিভিল ড্রেসে যে পু’লিশ ছিলেন, তিনি গালাগালি শুরু করে দিয়েছেন। আপনাদের ড্রেসআপ এর ঠিক নেই নির্লজ্জ, আপনাদের ওড়না ঠিক নেই, বেয়াদব মে’য়ে মানুষ।’

তিনি আরও লিখেন, ‘এক ম’হিলা এসে বলছে, বেয়াদব মে’য়ে এখনো ওড়না দিয়ে শ’রীর ঢাকোনি তর্ক করছ? আর সাথে সেই শিক্ষক নামাজ পড়তে না গিয়ে উনি হুকুম দিলেন, আমাদের আইডি কার্ড রেখে দেওয়ার।
আমরা হাঁটছিলাম তখন উনি আমাদেরকে ধরে আনার জন্য বললেন এবং এদের আইডি কার্ড রেখে দাও। সেই পু’লিশও সুযোগ পেলেন এবং আরও কিছু কথা শুনিয়ে বললেন, আইডি কার্ড দেন আপনাদের শিক্ষক বলছে।
আইডি কার্ড দেন না হলে বের হোন এক্ষনি ক্যাম্পাস থেকে অতঃপর মানসম্মানের ভ’য়ে নিজেরা ক্যাম্পাস থেকে বের হয়ে আসলাম। ভার্সিটিতে বলে দেওয়া হোক কোন ড্রেস আপ এ গেলে এভাবে শিক্ষার্থীদের হ্যারাজ হতে হবে না কাজলা গেটের এর পু’লিশ দ্বারা। তাদের কী নির্ধারিত করা হয়েছে মে’য়েদের ড্রেস দেখার জন্যে?’