যশোরে গুলি করে বাংলাদেশিকে হত্যা, নদীতে লাশ ফেলে দিল বিএসএফ

187

যশোরের শার্শা উপজেলার অগ্রভুলোট সীমান্তে শরিফুল ইসলাম (২৫) নামে এক বাংলাদেশি যুবককে গুলি করে হত্যা করেছে বিএসএফ। পরে ওই যুবকের লাশ সীমান্তের ইছামতী নদীতে ফেলে দিয়েছে।

বুধবার ভোর রাতে গরু নিয়ে দেশে ফেরার পথে ঝাউডাংগা ক্যাম্পের বিএসএফ তাকে হত্যা করে। নিহত শরিফুল ইসলাম (২৫) শার্শা থানার রাজগঞ্জ গ্রামের মৃত ইছাহক আলীর ছেলে।

নিহতের স্ত্রী মদিনা খাতুন ও চাচা ইউনুস আলী জানান, শরিফুল একজন গরু ব্যবসায়ী। গত সোমবার সে এই সীমান্ত দিয়ে গরু কিনতে ভারতে যায়। বুধবার ভোর রাতে গরু নিয়ে দেশে ফেরার পথে ঝাউডাংগা ক্যাম্পের বিএসএফ সদস্যরা তাকে গুলি করে হত্যার পর লাশ ইছামতী নদীতে ভাসিয়ে দেয়।

শার্শা থানার ওসি বদরুল আলমসহ পুলিশ ও বিজিবির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

ওসি জানান, অবৈধভাবে শরিফুল সীমান্ত অতিক্রম করে ভারতে যায়। শরিফুলের বুকে গুলির চিহ্ন রয়েছে। ময়নাতদন্ত ছাড়া এখনই কিছু বলা যাবে না। আমরা বিষয়টা খতিয়ে দেখব এবং লাশ ময়নাতদন্তের জন্য যশোর জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। তদন্ত শেষে বিস্তারিত জানা যাবে।

২১ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল মনজুর-ই-এলাহী জানান, বুধবার সকালে বিজিবির একটি দল নদীর পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় নদীতে তার লাশ ভাসতে দেখে পুলিশকে খবর দেয়।